রাত ৪:৪৫
১৭ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
৩রা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ক্যারিশমাটিক নেতা তারেক রহমান

বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষণা, সার্বভৌমত্ব রক্ষা, গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা এবং আধুনিক-স্বনির্ভর বাংলাদেশ বিনির্মাণের অভিযাত্রার সঙ্গে জিয়া পরিবারের যে আত্মিক বন্ধন, তারই ধারাবাহিকতা রক্ষার অজেয় উত্তরাধিকারের নাম তারেক রহমান। গুম-খুন, অবিচার-অত্যাচারে অতিষ্ঠ ১৮ কোটি মানুষের বর্তমান বাংলাদেশে সবচেয়ে কাঙ্ক্ষিত নেতৃত্বের নাম তারেক রহমান। বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদের আদর্শ বুকে ধারণ করে যে লাখ লাখ নেতাকর্মী নব্য স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে রাজপথে যুদ্ধ করছে, তাদের অনুপ্রেরণার নাম তারেক রহমান।

তারেক রহমানের দেশব্যাপী জনপ্রিয়তা ও সার্বজনীন গ্রহণযোগ্যতাই তাঁর জন্য কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে। বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদের বিরোধীদের কাছে তারেক রহমান সবসময়ই আতঙ্কের নাম। এক এগারো সরকার থেকে আওয়ামীলীগ সরকার; সবাই তারেক রহমানের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করেছে, অন্যায়ভাবে মামলা দিয়েছে। কিন্তু অনেক চেষ্টা করেও আজ পর্যন্ত একটি মামলারও সত্যতা প্রমান করতে পারিনি। এক বিচারপতি তারেক রহমানের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত অভিযোগের ভিত্তি না পাওয়ায় একটি মামলায় তাঁকে নির্দোষ রায় দিয়েছিল। পরবর্তীতে সেই বিচারপতিকে দেশত্যাগ করতে বাধ্য করেছে এই সরকার। জনমুখে প্রচলিত আছে, তারেক রহমানের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানোর জন্য আওয়ামী সরকারের একটি প্রোপাগাণ্ডা সেল রয়েছে। বিভিন্ন সময় বাকশালি কায়দায় তাদের নিয়ন্ত্রিত মিডিয়া দিয়ে এসব মিথ্যা অপপ্রচার চালায়। যদিও জাতীয়তাবাদী শক্তি তথা এদেশের আপামর জনসাধারণ এইসব মিথ্যা খবরে কর্নপাত করে না। নূন্যতম নাগরিক অধিকার না পাওয়া জনগনের কাছে তারেক রহমান মানে মুক্তির আলোকবর্তিকা। জনগণ মনেপ্রাণে বিশ্বাস করে, পিতার মতোই তারেক রহমানও এ জাতিকে আরেকবার মুক্ত করবে, ইনশাআল্লাহ!

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

500FansLike
700FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles