রাত ১:২৫
৯ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

.

আমাদের পথচলা

 

সত্য, বস্তুনিষ্ঠ ও নির্যাতিত পীড়িত মানুষের কণ্ঠস্বর হিসেবে বাংলাশের দীর্ঘ দুই বছরে সুনামের সাথে মিশে আছে দ্যা ভয়েস অব বাংলাদেশ পত্রিকাটির কর্ণধার তরিকুল ইসলাম ২০২০ সালের ২ মার্চ নিজের চেষ্টা ও নিষ্ঠা দিয়ে বাংলাদেশের সংবাদপত্রের তালিকায় নতুন এ সংবাদপত্রের নাম যোগ করেন । একঝাঁক উদ্যোমী তরুণ সাংবাদিকের নিরলস পরিশ্রমে অতি অল্প সময়ের মধ্যে গ্রামের ও শহর বাংলাদেশের মানুষের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে। বস্তুনিষ্ঠ, নিরপেক্ষ ও ব্যতিক্রমী সংবাদ পরিবেশনের কারণে পাঠকদের কাছে আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয় দ্যা ভয়েস অব বাংলাদেশ । শুধু বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন নয়,সামাজিক ও সেবামূলক কাজ করেও দ্যা ভয়েস অব বাংলাদেশ এ অঞ্চলের মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছে। বন্যদের পাশে ত্রান দিয়ে পাশে দাঁড়ায় দ্যা ভয়েস অব বাংলাদেশ ।এই মহতি উদ্যোগ পাঠক ও সুধীমহলে ব্যাপক সুনাম অর্জন করে। দ্যা ভয়েস অব বাংলাদেশ প্রতিদিনই ব্যতিক্রমী পরিবেশনা নিয়ে পাঠকের সামনে হাজির হচ্ছে। তথ্য প্রযুক্তিতেও এগিয়ে গেছে দ্যা ভয়েস অব বাংলাদেশ ।পত্রিকার পরিচিত বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে উদ্যোগী হয় দ্যা ভয়েস অব বাংলাদেশ অন-লাইন প্রকাশনা www.thevoiceofbd.com ব্যতিক্রমধর্মী উপস্থাপনা ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশের ফলে দ্যা ভয়েস অব বাংলাদেশ পৌছে গেছে বিশ্বব্যাপী।তারই ধারবাহিকতায় তরিকুল ইসলামের নেতৃত্বে এক ঝাঁক সৎ ও পরিশ্রমী উদ্যোমী সংবাদ কর্মীদের প্রচেষ্টায় এগিয়ে চলছে দ্যা ভয়েস অব বাংলাদেশ। www.thevoiceofbd.com ভিজিট করলে দেখা যাবে বিশ্বের যেকোন প্রান্ত থেকে। এখানেই থেমে নেই দ্যা ভয়েস অব বাংলাদেশ প্রচেষ্টা। দেশ ও বিদেশে ঘটে যাওয়া ঘটনার তাৎক্ষণিক প্রকাশ করার জন্যে www.thevoiceofbd.com সর্বাধুনিক প্রযুক্তির সমন্বয়ে তৈরী করা হয়েছে অনলাইন নিউজ পোর্টাল। মোবাইলেও দ্যা ভয়েস অব বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টালের সর্বশেষ খবর পড়া যাবে । এক্ষেত্রে মোবাইল ফোনে ইন্টারনেট কানেকশন থাকলেই চলবে। আলাদা কোন ইমেজ বা সফটওয়্যার ইনস্টল করা লাগবে না। দ্যা ভয়েস অব বাংলাদেশ পথ চলার সাথী হয়ে অনুপ্রেরণা দিতে সবার প্রতি রইল কৃতজ্ঞতা।